সিলেটকে পর্যটনে সাহায্য করবে ম্যানচেস্টার

পর্যটন, স্বাস্থ্য ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনাসহ পাঁচ বিষয়ে সিলেটের সাথে কাজ করবে ব্রিটেনের গ্রেটার ম্যানচেস্টার সিটি।

0
156

ব্রিটেনের গ্রেটার ম্যানচেস্টারের সঙ্গে সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) পাঁচটি বিষয়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে সিলেটে। দুই দেশের দুটি নগরের শিক্ষা, পর্যটন, স্বাস্থ্য, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, অবকাঠামো ও পরিবেশ উন্নয়নে্র উদ্দেশ্যে করা হয় এই সমঝোতা চুক্তি।

যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার সিটির মেয়রসহ ছয় সদস্যের উচ্চপদস্থ প্রতিনিধিদল প্রথমবারের মতো সিলেট সফরে আসে। গত শুক্রবার রাতে সিলেট নগরের একটি পাঁচতারা হোটেলে তাদেরকে সংবর্ধনা দেয় সিলেট সিটি করপোরেশন। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও গ্রেটার ম্যানচেস্টারের মেয়র অ্যান্ডি বার্নহ্যাম এই সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।

উভয় সিটি নিজেদের অভিজ্ঞতা ও পরিকল্পনা পরস্পরের সঙ্গে বিনিময় এবং এসব বিষয়ে কার্যকর উন্নয়নের জন্য কাজ করবে। এছাড়া পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নে উভয় সিটি ঐকমত্যে পৌঁছেছে বলেও স্মারকে উল্লেখ আছে। এই সমঝোতা স্মারক এক বছর পর উভয়পক্ষ মিলে পর্যালোচনা করবে।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ম্যানচেস্টারের মেয়র অ্যান্ডি ব্যানহ্যাম বলেন, ‘সিলেট ও ম্যানচেস্টারের মধ্যে গভীর সম্পর্ক বিদ্যমান। প্রায় ৫০ হাজার সিলেটি বাংলাদেশি ম্যানচেস্টারে বসবাস করেন। সব ক্ষেত্রে সিলেটিরা কাজ করছেন এবং ব্রিটেনের উন্নয়নে অবদান রাখছেন।’

এছাড়া সিলেটের পাঁচটি জিনিস তাঁকে আকর্ষণ করেছে বলে তিনি জানান, ‘চা, ক্রিকেট, কলা ফল, রেস্টুরেন্ট এবং একজন বিপুল জনপ্রিয় বিরোধীদলীয় মেয়র।’

অনুষ্ঠানে সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী, যুক্তরাজ্যের ওল্ডহাম কাউন্সিলের ডেপুটি লিডার আব্দুল জব্বার ওবিই, সীমার্ক গ্রুপের চেয়ারম্যান ইকবাল আহমেদ ওবিই, ইউনিভার্সিটি অব ম্যানচেস্টার সিটির পরিচালক ড্যানিয়েল স্টোর, ওসমানী হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইউনুসুর রহমান, আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ লালা, সিলেট প্রাইভেট ক্লিনিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. নাসিম আহমদ, শিক্ষাবিদ ড. কবির এ চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এসময়ে সিলেটের মেয়র আরিফুল হক আগামীতে সিসিকের যেসব মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে চান সেগুলোও তুলে ধরেন।

মন্তব্য করুনঃ-

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে